হাইভোল্টেজ ম্যাচে রাতে মুখোমুখি হবে ম্যানচেস্টার সিটি-টটেনহ্যাম হটস্পার। শিরোপার পথে এগিয়ে যাওয়ার মিশন সিটিজেনদের। এতিহাদ স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে রাত সাড়ে ১১টায়। এর আগে আরেক ম্যাচে লেস্টার সিটির বিপক্ষে লড়বে লিভারপুল। কিং পাওয়ার স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়।

ইতিহাদে হাইভোল্টেজ ম্যাচ। রোমাঞ্চ ছড়াতে প্রস্তুত ম্যানচেস্টার সিটি ও টটেনহ্যাম হটস্পার। দু’দলের অবস্থান ভিন্ন মেরুতে। ইপিএলের শুরুতে রাজত্ব ছিল টটেনহ্যামের দখলে। সময়ের সঙ্গে সে রাজত্ব দখলে নিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি।

এ ম্যাচে জিতলে শিরোপা জয়ের পথে আরো এগিয়ে যাবে সিটিজেনরা। অন্যদিকে, ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে ধুঁকছে টটেনহ্যাম হটস্পার। তাই দুই দলের মর্যাদার ম্যাচে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে এটা নিশ্চিত।

শেষ ম্যাচে ইংলিশ ফুটবলে নতুন ইতিহাস রচনা করেছে সিটি। এফএ কাপে সোয়ানসি সিটিকে হারিয়ে, সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা ১৫ ম্যাচ জয়ের রেকর্ড গড়েছে গার্দিওলার দল। লিগে নিজেদের শেষ ম্যাচেও গুন্ডোগান জাদু দেখেছিল বিশ্ব। ১৭ বছর পর অ্যানফিল্ড থেকে জয় নিয়ে ফিরেছিল গার্দিওলা বাহিনী। সে আত্মবিশ্বাসই সঙ্গী সিটিজেনদের।

ইনজুরির কারণে এফ এ কাপে খেলতে পারেননি ডিফেন্ডার রুবেন দিয়াস। এ ম্যাচেও অনিশ্চিত তিনি। ইনজুরির কারণে অনিশ্চয়তা আছেন নাথান অ্যাকে, ডি ব্রুইনা ও আগুয়েরোর খেলা নিয়েও।

প্রতিপক্ষ টটেনহ্যাম হটস্পার টানা তিন হারের পর গেল ম্যাচে ওয়েস্ট ব্রমকে হারিয়ে জয়ে ফিরেছে। সিটির বিপক্ষে জয় কঠিন হলেও, শেষ দেখায় গার্দিওলার দলকে হারানোর স্মৃতি আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে স্পারদের। ইনজুরির কারণে এ ম্যাচে খেলতে পারবেন না লো সেলসো, সার্জি রিগুইলন ও অরিয়র।

মুখোমুখি পরিসংখ্যানে ম্যানচেস্টার সিটির ৫৬ জয়ের বিপরীতে টটেনহ্যামের জয় ৫৫টি। ড্র হয়েছে ৩২ বার।

ইপিএলের আরেক ম্যাচে লড়বে লিভারপুল ও লেস্টার সিটি। ২৩ ম্যাচে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে ফক্সেস। তিন পয়েন্ট পেছনে থেকে চারে আছে লিভারপুল। শিরোপার আশা প্রায় শেষ হয়ে যাচ্ছে ক্লপের দলের। তারপরও লেস্টারকে হারিয়ে রেসে ফিরতে চায় ক্লপ শিষ্যরা। দু’দলের মুখোমুখি দেখায় লিভারপুলের জয় ৪১ বার। ৩৩টি ম্যাচ জিতেছে লেস্টার।