২০২৮ অলিম্পিকেই অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে ক্রিকেট

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: অলিম্পিক গেমসে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্তি নিয়ে বিস্তর আলোচনা চলছে। অনেক আগে থেকেই এ নিয়ে কথা-বার্তা চলছিল। এবার খোদ আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি) এ নিয়ে সম্ভাব্যতা যাছাইয়ে মাঠে নেমেছে এবং আইসিসিকে এই খেলা অন্তর্ভুক্তি করার যৌক্তিতা নিয়ে যুক্তি-তর্ক উপস্থাপন করতে বলেছে।

২০২৮ লজ অ্যাঞ্জেলেস অলিম্পিকে অন্তর্ভুক্তির জন্য মোট ৯টি খেলাকে আইওসি শর্টলিস্টে ঠাঁই দিয়েছে। সেগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ক্রিকেট।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

মূলত এবারের বার্মিংহ্যাম কমনওয়েলথ গেমসে ক্রিকেট প্রত্যাবর্তনের পর অলিম্পিক গেমসেও ক্রিকেটের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে আলোচনা জোরদার হয়েছে। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি ২০২৮ সালের অলিম্পিক আসরের জন্য ক্রিকেটসহ অন্য আটটি খেলার অন্তর্ভুক্তির পর্যালোচনা করবে।

২০২৮ সালের অলিম্পিক গেমস মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে অনুষ্ঠিত হবে। এই অলিম্পিক আসরে ক্রিকেটকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে কি না সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ২০২৩ সালে। আইসিসি এবং ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের প্রচেষ্টার কারণে ২০২২ সালের কমনওয়েলথ গেমসে ক্রিকেটকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

১৯০০ সালে প্যারিসে প্রথমবারের মতো অলিম্পিকে অন্তর্ভুক্ত করা হয় ক্রিকেট। সেবার কেবল স্বাগতিক ফ্রান্স এবং ইংল্যান্ড পরস্পর মুখোমুখি হয়েছিল। এরপর আর কখনো অলিম্পিকে ক্রিকেটকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।

আইওসি যে ৯টি খেলাকে নিয়ে পর্যালোচনা করছে সেগুলো হলো- বেসবল, পতাকা ফুটবল, ব্রেক ডান্সিং, কারাতে, কিকবক্সিং, স্কোয়াশ, ল্যাক্রোস এবং মোটরস্পোর্ট অন্তর্ভুক্ত করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। অলিম্পিক্স কমিটি ফেব্রুয়ারিতে বলেছিল যে, ২০২৮ সালের অলিম্পিক গেমসকে কেন্দ্র করে মোট ২৮টি খেলা অন্তর্ভুক্ত করাবে। নতুন খেলার অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে কমিটি বলেছিল যে নতুন খেলা অলিম্পিকে মানানসই কিনা সেটা দেখতে হবে।

আইসিসি মনে করে অলিম্পিক গেমসে ক্রিকেটকে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত। কমনওয়েলথ গেমসে ক্রিকেটের ক্রেজ ও আকর্ষণ সবচেয়ে বেশি হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইসিসির সিইও জিওফ অ্যালার্ডিস। তিনি বলেন, ‘মাল্টিস্পোর্টস ইভেন্টে খেলা খেলোয়াড়দের জন্যও রোমাঞ্চকর। তবে কমনওয়েলথ গেমসে শুধু নারী ক্রিকেটকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অলিম্পিকে মহিলা ও পুরুষ উভয় ক্রিকেটই অন্তর্ভুক্ত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। আইসিসি ক্রিকেটের বৈশ্বিক আউটরিচ নিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী।’

ঢাকা/টিএ