মহামারি করোনা ভাইরাস তাণ্ডবে বিপর্যস্ত বিশ্ব। এখনো কার্যকরী কোন ভ্যাকসিন না আসায় সংক্রমণ ও মৃত্যু প্রতিদিনই বেড়ে চলছে। কিছুদিন ধরে বাংলাদেশে সংক্রমণের হার কমলেও মৃত্যুর সংখ্যা এখনো আশঙ্কাজনক। আজ সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) নতুন রোগী কিছুটা বেড়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে এক হাজার ৪০৭ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। আগের সাত দিনে দেশে যথাক্রমে ১২৭৫, ১১০৬, ১৩৮৩, ১০৫৪, ১৬৬৬, ১৫৫৭ ও ১৭০৫ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে- দেশে নভেল করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৬০ হাজার ৫৫৫ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মোট ১১ হাজার ৯২২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর পরীক্ষাকৃত এসব নমুনার ১১ দশমিক ৮০ শতাংশের মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

গতকাল ১০ হাজার ৬৮৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশে মোট ১৯ লাখ ২১ হাজার ৩৮২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর মোট পরীক্ষার ১৮ দশমিক ৭৫ শতাংশ পজেটিভ।

আজ সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।


একনজরে দেশের করোনার চিত্র

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন: ১৪০৭ জন

মোট আক্রান্তের সংখ্যা: ৩৬০৫৫৫ জন

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে: ৩২ জনের

মোট মৃত্যু হয়েছে: ৫১৯৩ জনের

২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন: ১৫৮২ জন

মোট সুস্থ হয়েছেন: ২৭২০৭৩ জন


গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৩২ জন মারা গেছেন। গত ৩০ জুন দেশে সর্বোচ্চ ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এরপর ২৬ জুলাই ও ২৬ আগস্ট দেশে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৪ জনের মৃত্যু হয়। এর আগে গত ১৬ জুন করোনায় মারা গিয়েছিলেন ৫৩ জন।

গত সাত দিনে করোনা ভাইরাসে মারা গেছেন যথাক্রমে ৩২, ৩৬, ২১, ২৮, ৩৭, ২৮ ও ৪০ জন।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ১৯৩ জনে। মোট শনাক্তকৃত রোগীর বিপরীতে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৪ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও এক হাজার ৫৮২ জন সুস্থ হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা থেকে মোট সুস্থ হয়েছেন দুই লাখ ৭২ হাজার ৭৩ জন। মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭৫ দশমিক ৪৬ শতাংশ।