পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত অন্তত ৮২টি কোম্পানির শেয়ারে আগ্রহ নেই বিনিয়োগকারীদের। ফলে এসব কোম্পানির শত শত শেয়ার বিক্রয়াদেশ থাকলেও ক্রেতা সংকটে ভুগছে। 

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) লেনদেনের প্রথম সোয়া ঘণ্টায় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) এই চিত্র দেখা গেছে।

এদিন সকালে বেশির ভাগ শেয়ারের দাম বাড়ার মধ্য দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। তাতে সূচকও বাড়তে থাকে, তবে তা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। মাত্র ১৬ মিনিট পর শেয়ার বিক্রির চাপ শুরু হয়। এই সময় সূচক বাড়ে ২২ পয়েন্ট।   

এরপর কমতে থাকে বহুজাতিক কোম্পানিসহ বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দম। আর তাতে সূচকের পাশাপাশি লেনদেনে ধীরগতি দেখা দেয়।

বেলা সোয়া ১১টা পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ১১০টির, কমেছে ৮৫টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ১০৫টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

এসময়ে ডিএসইর প্রধান সূচক ১৭ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৩৬৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএস-৩০ সূচক আগের দিনের চেয়ে ১৪ পয়েন্ট এবং ডিএসইস সূচক ৪ পয়েন্ট কমেছে। তাতে লেনদেন হয়েছে ২০৭ কোটি ৩ লাখ ২৮ হাজার টাকা।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) প্রধান সূচক ৬৩ পয়েন্ট কমে ১৫ হাজার ৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এসময়ে লেনদেন হয়েছে ৫ কোটি ১ লাখ ৭৪ হাজার টাকা। লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ২৯টির, কমেছে ৩৪টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির।

 

আরও পড়ুন: