০২:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

কখনো, কোথাও বলিনি বিশ্বকাপে পাঁচ ম্যাচের বেশি খেলবো না: তামিম

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ০৬:০৯:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪১৬০ বার দেখা হয়েছে

তামিম ইকবালকে বিশ্বকাপ দলে না নেওয়া নিয়ে চলছে নানা তর্ক-বিতর্ক। গুঞ্জনেরও শেষ নেই। সবার ভুল ভাঙতে বিকাল সোয়া পাঁচটার দিকে ভিডিও বার্তা দিয়েছেন তামিম। ১২ মিনিট ১০ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে নানা কথা বলেন বাংলাদেশের এই ব্যাটার, যার শিরোনামে ছিল ‘আমি চাইনি আপনারা ভুল কিছু জানুন’।

ভিডিওর শুরুতে তামিম বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় সঠিক জিনিসটা সবার জানা উচিত। আপনারা জানেন আমি পদত্যাগ করি। এটারও একটা কারণ ছিল। তারপর আমি প্রধানমন্ত্রীর কারণে ফিরে আসি। এরপর গত দুই মাস আমি অনেক কষ্ট করি। এই সময়টাতে আমি নিজেকে ফিট করার জন্য এমন কোনও কষ্ট নেই যা করিনি।’

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

গুঞ্জন উঠেছিল, তামিম বিশ্বকাপে সবগুলো ম্যাচ খেলবেন না বলেই তাকে নেওয়া হয়নি। এনিয়ে তার ভাষ্য, ‘যখন আমি খেলা শুরু করলাম। ৩৫ ওভার যখন ফিল্ডিং করলাম। দ্বিতীয় ম্যাচে যখন ব্যাটিংয়র সুযোগ আসলো। আমি চেষ্টা করেছি আমার সর্বোচ্চটা দেওয়ার। হয়তো আমরা হেরে গেছি। আমি খুশি ছিলাম আমার ব্যাটিং নিয়ে। ম্যাচ শেষে আমি মানসিকভাবে খুশি ছিলাম। আপনি যখন এতদিন পর ক্রিকেট খেলবেন, কিছুটা অস্বস্তি থাকবেই। দুই ম্যাচেই আমি কিছুটা ব্যথা অনুভব করেছি। আমি আমার অবস্থান মেডিক্যাল বিভাগকে বলেছি। ওই সময় তিন জন নির্বাচক আমার কাছে আসে।’

তিনি বলে গেলেন, ‘আমি কখনও, কোনোভাবেই বলিনি আমি পাঁচ ম্যাচের বেশি খেলবো না। আমি কেবল নির্বাচকদের বলেছিলাম আমদের ইনজুরির কথা জেনে আমাদের নির্বাচন করুন। তখন সবাই এই ব্যাপারে একমত হয়েছিল। কিন্তু পরে এটা নিয়ে বিতর্ক হলো।’

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়লো টাইগাররা

তামিমের বক্তব্য, ‘বিশ্বকাপের সূচিই এমন ছিল, ফাঁকা সময় ছিল অনেক। এটা সুস্থ মানুষের ক্ষেত্রে কিন্তু ইনজুরির ঝুঁকি থাকতে পারে। আমাকে যখন মূল্যায়ন করে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা ফিজিওর রিপোর্টে কী ছিল? ফিজিওর রিপোর্টে যা ছিল বলছি। কেউ যদি আমার সঙ্গে এই জিনিসটা নিয়ে চ্যালেঞ্জ করতে চান, তাদের মোস্ট ওয়েলকাম। আমার সাথে পাবলিক ফোরামে বসেন, আমাকে বলেন যে আমি ভুল বলেছি।’

ঢাকা/এসএ

শেয়ার করুন

x

কখনো, কোথাও বলিনি বিশ্বকাপে পাঁচ ম্যাচের বেশি খেলবো না: তামিম

আপডেট: ০৬:০৯:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

তামিম ইকবালকে বিশ্বকাপ দলে না নেওয়া নিয়ে চলছে নানা তর্ক-বিতর্ক। গুঞ্জনেরও শেষ নেই। সবার ভুল ভাঙতে বিকাল সোয়া পাঁচটার দিকে ভিডিও বার্তা দিয়েছেন তামিম। ১২ মিনিট ১০ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে নানা কথা বলেন বাংলাদেশের এই ব্যাটার, যার শিরোনামে ছিল ‘আমি চাইনি আপনারা ভুল কিছু জানুন’।

ভিডিওর শুরুতে তামিম বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় সঠিক জিনিসটা সবার জানা উচিত। আপনারা জানেন আমি পদত্যাগ করি। এটারও একটা কারণ ছিল। তারপর আমি প্রধানমন্ত্রীর কারণে ফিরে আসি। এরপর গত দুই মাস আমি অনেক কষ্ট করি। এই সময়টাতে আমি নিজেকে ফিট করার জন্য এমন কোনও কষ্ট নেই যা করিনি।’

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

গুঞ্জন উঠেছিল, তামিম বিশ্বকাপে সবগুলো ম্যাচ খেলবেন না বলেই তাকে নেওয়া হয়নি। এনিয়ে তার ভাষ্য, ‘যখন আমি খেলা শুরু করলাম। ৩৫ ওভার যখন ফিল্ডিং করলাম। দ্বিতীয় ম্যাচে যখন ব্যাটিংয়র সুযোগ আসলো। আমি চেষ্টা করেছি আমার সর্বোচ্চটা দেওয়ার। হয়তো আমরা হেরে গেছি। আমি খুশি ছিলাম আমার ব্যাটিং নিয়ে। ম্যাচ শেষে আমি মানসিকভাবে খুশি ছিলাম। আপনি যখন এতদিন পর ক্রিকেট খেলবেন, কিছুটা অস্বস্তি থাকবেই। দুই ম্যাচেই আমি কিছুটা ব্যথা অনুভব করেছি। আমি আমার অবস্থান মেডিক্যাল বিভাগকে বলেছি। ওই সময় তিন জন নির্বাচক আমার কাছে আসে।’

তিনি বলে গেলেন, ‘আমি কখনও, কোনোভাবেই বলিনি আমি পাঁচ ম্যাচের বেশি খেলবো না। আমি কেবল নির্বাচকদের বলেছিলাম আমদের ইনজুরির কথা জেনে আমাদের নির্বাচন করুন। তখন সবাই এই ব্যাপারে একমত হয়েছিল। কিন্তু পরে এটা নিয়ে বিতর্ক হলো।’

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়লো টাইগাররা

তামিমের বক্তব্য, ‘বিশ্বকাপের সূচিই এমন ছিল, ফাঁকা সময় ছিল অনেক। এটা সুস্থ মানুষের ক্ষেত্রে কিন্তু ইনজুরির ঝুঁকি থাকতে পারে। আমাকে যখন মূল্যায়ন করে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা ফিজিওর রিপোর্টে কী ছিল? ফিজিওর রিপোর্টে যা ছিল বলছি। কেউ যদি আমার সঙ্গে এই জিনিসটা নিয়ে চ্যালেঞ্জ করতে চান, তাদের মোস্ট ওয়েলকাম। আমার সাথে পাবলিক ফোরামে বসেন, আমাকে বলেন যে আমি ভুল বলেছি।’

ঢাকা/এসএ