০৯:০৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪

ডিএসই’র খাতভিত্তিক লেনদেনের শীর্ষে প্রকৌশল খাত

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ১১:১১:৪৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৪১৮৯ বার দেখা হয়েছে

ফাইল ফটো

সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে (২৬ থেকে ৩০ নভেম্বর) দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) খাতভিত্তিক লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে প্রকৌশল খাত। গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট লেনদেনের ১৮.৩০ শতাংশ অবদান রয়েছে এই খাতে। ইবিএল সিকিউরিটিজ লিমিটেড সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

সূত্র জানায়, খাদ্য খাতে ১৩.৮০ শতাংশ লেনদেন করে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। ঔষধ ও রসায়ন খাতে ১১.৪০ শতাংশ লেনদেন করে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

আরও পড়ুন:

তালিকায় থাকা অন্য খাতগুলোর মধ্যে বস্ত্র খাতে ১০.৬০ শতাংশ, কাগজ খাতে ৭.৫০ শতাংশ, সাধারন বীমা খাতে ৬.৮০ শতাংশ, বিবিধ খাতে ৫.৯০ শতাংশ, সিরামিক খাতে ৫.৭০ শতাংশ, ভ্রমণ খাতে ৪.৫০ শতাংশ, জ্বালানি-বিদ্যুৎ খাতে ৩.১০ শতাংশ, আইটি  খাতে ২.৩০ শতাংশ, কাগজ খাতে ২.৮০ শতাংশ, সেবা-আবাসন খাতে ১.৯০ শতাংশ, পাট খাতে ১.৮০ শতাংশ, সিমেন্ট খাতে ১.৬০ শতাংশ, জীবন বীমা খাতে ১.৫০ শতাংশ, ট্যানারি খাতে ১.৪০ শতাংশ, ব্যাংক খাতে দশমিক ৬০ শতাংশ,  মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে দশমিক ৫০ শতাংশ,  আর্থিক খাতে দশমিক ২০ শতাংশ এবং ও যোগাযোগ খাতে ০.০ শতাংশ লেনদেন হয়েছে।

ঢাকা/টিএ

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

x
English Version

ডিএসই’র খাতভিত্তিক লেনদেনের শীর্ষে প্রকৌশল খাত

আপডেট: ১১:১১:৪৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২৩

সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে (২৬ থেকে ৩০ নভেম্বর) দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) খাতভিত্তিক লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে প্রকৌশল খাত। গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট লেনদেনের ১৮.৩০ শতাংশ অবদান রয়েছে এই খাতে। ইবিএল সিকিউরিটিজ লিমিটেড সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

সূত্র জানায়, খাদ্য খাতে ১৩.৮০ শতাংশ লেনদেন করে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। ঔষধ ও রসায়ন খাতে ১১.৪০ শতাংশ লেনদেন করে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

আরও পড়ুন:

তালিকায় থাকা অন্য খাতগুলোর মধ্যে বস্ত্র খাতে ১০.৬০ শতাংশ, কাগজ খাতে ৭.৫০ শতাংশ, সাধারন বীমা খাতে ৬.৮০ শতাংশ, বিবিধ খাতে ৫.৯০ শতাংশ, সিরামিক খাতে ৫.৭০ শতাংশ, ভ্রমণ খাতে ৪.৫০ শতাংশ, জ্বালানি-বিদ্যুৎ খাতে ৩.১০ শতাংশ, আইটি  খাতে ২.৩০ শতাংশ, কাগজ খাতে ২.৮০ শতাংশ, সেবা-আবাসন খাতে ১.৯০ শতাংশ, পাট খাতে ১.৮০ শতাংশ, সিমেন্ট খাতে ১.৬০ শতাংশ, জীবন বীমা খাতে ১.৫০ শতাংশ, ট্যানারি খাতে ১.৪০ শতাংশ, ব্যাংক খাতে দশমিক ৬০ শতাংশ,  মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে দশমিক ৫০ শতাংশ,  আর্থিক খাতে দশমিক ২০ শতাংশ এবং ও যোগাযোগ খাতে ০.০ শতাংশ লেনদেন হয়েছে।

ঢাকা/টিএ

Print Friendly, PDF & Email