পরিবর্তন আসতে পারে পুঁজিবাজার লেনদেনের সময়সূচিতেও

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: জ্বালানি সাশ্রয় ও ট্রাফিক জ্যাম রোধে সরকারি সব অফিস সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা এবং ব্যাংক সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। একই সঙ্গে স্কুল সপ্তাহে ২ দিন বন্ধ থাকবে। এর সাথে সমন্বয় করে পুঁজিবাজারের লেনদেনের সময়সূচিতেও পরিবর্তন আসতে পারে।

প্রসঙ্গত, আগামী বুধবার (২৪ আগস্ট) থেকে দেশের সব তফসিলি ব্যাংক সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। সোমবার (২২ আগস্ট) মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে সম্প্রতি বিদ্যুৎ এবং জ্বালানি সাশ্রয়ের জন্য অফিসের কর্মঘণ্টা কমানোর বিষয়টি আলোচনায় আসে। এছাড়া রাত ৮টার পর দোকানপাট, শপিংমল বন্ধ রাখার বিষয়ে সরকারি নির্দেশনা ইতোমধ্যে কার্যকর হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও বলেন, সব সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত এবং সরকারি অধীনস্ত অফিস সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত চলবে। দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সপ্তাহে দু’দিন বন্ধ থাকবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট বিভাগ বিজ্ঞপ্তি জারি করবে।

এছাড়া আমনের সেচের সুবিধার জন্য আগামী ১২-১৫ দিন গ্রামে মধ্যরাত থেকে ভোর পর্যন্ত নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও জানায় তিনি।

পুঁজিবাজারের লেনদেনের সময়সূচি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম বিজনেস জার্নালকে বলেন, ‘পুঁজিবাজারের লেনদেন সবসময়ই ব্যাংক লেনদেনের সময়ের সঙ্গে সমন্বয় করে নির্ধারণ করা হয়। আজ মন্ত্রীসভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ব্যাংকের অফিস টাইম নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে ব্যাংক লেনদেনের সময়সূচি সংক্রান্ত কোন নির্দেশনা আসেনি। বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত সার্কুলার বা নির্দেশনা আসলেই পুঁজিবাজার লেনদেনের সময়সূচিতেও পরিবর্তন আসবে বলে জানান তিনি’।

ঢাকা/এসএ