০৫:১৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

পুঁজিবাজারে মূলধন কমেছে তিন হাজার ২৮৯ কোটি কোটি টাকা

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ১২:৪৭:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪
  • / ৪১৭৪ বার দেখা হয়েছে

ফাইল ফটো

সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে (২৫ থেকে ২৯ ফেব্রুয়ারি) দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসই ও অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) মোট বাজার মূলধন কমেছে তিন হাজার ২৮৯ কোটি ৬৩ লাখ টাকার বেশি। বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইর লেনদেন বেড়েছে ৪.১০ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইর দরপতনে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারদর। বিদায়ী সপ্তাহে অপর পুঁজিবাজার সিএসইতে সূচক পতনে লেনদেন কমেছে ৮.৭৮ শতাংশ। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

জানা গেছে, রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৭ লাখ ৬২ হাজার ১৪ কোটি ৭৪ লাখ ৫৬ হাজার টাকায়। আর বিদায়ী সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৭ লাখ ৬০ হাজার ৭২৩ কোটি ৪৮ লাখ ৩৫ হাজার টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে বাজার মূলধন ১ হাজার ২৯১ কোটি ২৬ লাখ ২১ হাজার টাকা কমেছে।

সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৪ হাজার ৩৮৫ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে মোট লেনদেন হয় ৩ হাজার ৩৭০ কোটি ১৪ লাখ টাকা। সে হিসাবে মোট লেনদেন বেড়েছে হাজার ১ হাজার ১৫ কোটি ৩৪ লাখ টাকা বা ৪ দশমিক ১০ শতাংশ।

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান বা ডিএসইএক্স সূচক ১৯.৪২ পয়েন্ট বা ০.৩১ শতাংশ কমে অবস্থান করছে ৬ হাজার ২৫৪.৫৩ পয়েন্টে।

আলোচ্য সপ্তাহে বাজারমূলধনের শীর্ষ ডিএস৩০ সূচক ১২.৭৮ পয়েন্ট ০.৬০ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১২৬.৭৯ পয়েন্টে। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ০.৭০ পয়েন্ট ০.০৫ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৫৯.৮২ পয়েন্টে।

আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৪০৯টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৬টির, কমেছে ২৩২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টির।

আরও পড়ুন: সাপ্তাহিক রিটার্নে মুনাফার শীর্ষে কাগজ খাত

অপর পুঁজিবাজার সিএসইর প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৩৯.১৭ পয়েন্ট বা ০.৩৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৭৪৪.৩৮ পয়েন্টে। সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৭৬.৮২ পয়েন্ট বা ০.৪২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৯২৮.৩৮ পয়েন্টে, শরিয়াহ সূচক ৩.১৭ পয়েন্ট বা ০.২৮ শতাংশ কমে ১ হাজার ১৪৮.৬৯ পয়েন্টে এবং সিএসই৩০ সূচক ৬৯.৫৯ পয়েন্ট বা ০.৫১ শতাংশ কমে ১৩ হাজার ৩৪৬.৪০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে ৬৭ কোটি ৩৫ লাখ ৯৪ হাজার ৮৩৫ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৭৩ কোটি ৮৪ লাখ ৬৪ হাজার ৬ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ৬ কোটি ৪৮ লাখ ৬৯ হাজার ১৭১ টাকা বা ৮.৭৮ শতাংশ কমেছে।

আলোচ্য সপ্তাহে সিএসইতে ৩৩৭টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছিল। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৫টির, দর কমেছে ১৮৩টির এবং শেয়ার দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮টির কোম্পানির।

রোববার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে সিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৭ লাখ ৫৪ হাজার ৯৯৯ কোটি ৫৪ লাখ টাকায়। যা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার লেনদেন শেষে দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৫৩ হাজার ১ কোটি ৩৬ লাখ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন ১ হাচার ৯৯৮ কোটি ৩৭ লাখ টাকা কমেছে।

ঢাকা/টিএ

শেয়ার করুন

x
English Version

পুঁজিবাজারে মূলধন কমেছে তিন হাজার ২৮৯ কোটি কোটি টাকা

আপডেট: ১২:৪৭:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে (২৫ থেকে ২৯ ফেব্রুয়ারি) দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসই ও অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) মোট বাজার মূলধন কমেছে তিন হাজার ২৮৯ কোটি ৬৩ লাখ টাকার বেশি। বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইর লেনদেন বেড়েছে ৪.১০ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইর দরপতনে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারদর। বিদায়ী সপ্তাহে অপর পুঁজিবাজার সিএসইতে সূচক পতনে লেনদেন কমেছে ৮.৭৮ শতাংশ। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

জানা গেছে, রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৭ লাখ ৬২ হাজার ১৪ কোটি ৭৪ লাখ ৫৬ হাজার টাকায়। আর বিদায়ী সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৭ লাখ ৬০ হাজার ৭২৩ কোটি ৪৮ লাখ ৩৫ হাজার টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে বাজার মূলধন ১ হাজার ২৯১ কোটি ২৬ লাখ ২১ হাজার টাকা কমেছে।

সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৪ হাজার ৩৮৫ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে মোট লেনদেন হয় ৩ হাজার ৩৭০ কোটি ১৪ লাখ টাকা। সে হিসাবে মোট লেনদেন বেড়েছে হাজার ১ হাজার ১৫ কোটি ৩৪ লাখ টাকা বা ৪ দশমিক ১০ শতাংশ।

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান বা ডিএসইএক্স সূচক ১৯.৪২ পয়েন্ট বা ০.৩১ শতাংশ কমে অবস্থান করছে ৬ হাজার ২৫৪.৫৩ পয়েন্টে।

আলোচ্য সপ্তাহে বাজারমূলধনের শীর্ষ ডিএস৩০ সূচক ১২.৭৮ পয়েন্ট ০.৬০ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১২৬.৭৯ পয়েন্টে। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ০.৭০ পয়েন্ট ০.০৫ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৫৯.৮২ পয়েন্টে।

আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৪০৯টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৬টির, কমেছে ২৩২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টির।

আরও পড়ুন: সাপ্তাহিক রিটার্নে মুনাফার শীর্ষে কাগজ খাত

অপর পুঁজিবাজার সিএসইর প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৩৯.১৭ পয়েন্ট বা ০.৩৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৭৪৪.৩৮ পয়েন্টে। সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৭৬.৮২ পয়েন্ট বা ০.৪২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৯২৮.৩৮ পয়েন্টে, শরিয়াহ সূচক ৩.১৭ পয়েন্ট বা ০.২৮ শতাংশ কমে ১ হাজার ১৪৮.৬৯ পয়েন্টে এবং সিএসই৩০ সূচক ৬৯.৫৯ পয়েন্ট বা ০.৫১ শতাংশ কমে ১৩ হাজার ৩৪৬.৪০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে ৬৭ কোটি ৩৫ লাখ ৯৪ হাজার ৮৩৫ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৭৩ কোটি ৮৪ লাখ ৬৪ হাজার ৬ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ৬ কোটি ৪৮ লাখ ৬৯ হাজার ১৭১ টাকা বা ৮.৭৮ শতাংশ কমেছে।

আলোচ্য সপ্তাহে সিএসইতে ৩৩৭টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছিল। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৫টির, দর কমেছে ১৮৩টির এবং শেয়ার দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮টির কোম্পানির।

রোববার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে সিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৭ লাখ ৫৪ হাজার ৯৯৯ কোটি ৫৪ লাখ টাকায়। যা সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার লেনদেন শেষে দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৫৩ হাজার ১ কোটি ৩৬ লাখ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন ১ হাচার ৯৯৮ কোটি ৩৭ লাখ টাকা কমেছে।

ঢাকা/টিএ