০৭:০৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪

রিস্ক বেইজড সুপারভিশন বাস্তবায়নে বীমা কোম্পানিগুলোকে প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ০৪:২৭:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪১৩৯ বার দেখা হয়েছে

রিস্ক বেইজড সুপারভিশন বাস্তাবায়নে দেশের সকল লাইফ ও নন-লাইফ বীমা কোম্পানিকে প্রস্তুতি আহ্বান জানিয়েছেন বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের ( আইডিআরএ) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারী।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

মঙ্গলবার (০২ এপ্রিল) কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে বীমা কোম্পানিগুলোর মুখ্য নির্বাহীসহ খাত সংশ্লিষ্টদের সাথে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এই আহবান জানান।

আইডিআরএ’র সকল সদস্য, নির্বাহী পরিচালক, পরিচালক, উপ-পরিচালক, সহকারী পরিচালক, সাধারণ বীমা করপোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, জীবন বীমা করপোরেশনের জেনারেল ম্যানেজার, বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স ফোরামের সভাপতি এবং বিভিন্ন বীমা কোম্পানির মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তারা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় রিস্ক বেইজড সুপারভিশন গাইডলাইনের খসড়া উপস্থাপন করেন বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের সহকারী পরিচালক মো. আবু মাহমুদ।

আইডিআরএ চেয়ারম্যান বলেন, বীমা একটি বৈশ্বিক শিল্প বিধায় বিশ্বের অন্যান্য দেশে প্রচলিত নিয়ম নীতিগুলো অনুসরণ করে টেকসই বীমা শিল্প গড়ে তুলতে হবে। রিস্ক বেইজড সুপারভিশন গাইডলাইন বাস্তবায়নের মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর প্রকৃত চিত্র প্রতিফলিত হবে।

তিনি উন্নত বিশ্বে প্রচলিত রিস্ক বেইজড সুপারভিশন আমাদের দেশে দ্রুত বাস্তবায়নের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। এজন্য প্রশিক্ষণসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেয়া হবে বলেও জানান কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারী।

গাইডলাইনের বিষয়ে বৈঠকে বলা হয়, ঝুঁকি ভিত্তিক নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থায় কোম্পানিগুলোর ঝুঁকির মাত্রা বিবেচনায় নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থা নিয়ন্ত্রণমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করে, যার মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর আর্থিক স্থিতিশীলতা বজায় থাকে।

কোম্পানিগুলোর রিস্ক প্রোফাইল এর মাধ্যমে এই কার্যক্রম শুরু হয় এবং ঝুঁকির মাত্রা অনুযায়ী বিভিন্ন শ্রেণীতে বিভাজন করে আনুপাতিকভাবে নিয়ন্ত্রণমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।

আরও পড়ুন: এবার ইসলামী ব্যাংকের ভল্ট ভেঙ্গে টাকা চুরি

এই প্রক্রিয়ায় গুণগত ও পরিমাণগত বিভিন্ন চলক ও তথ্যাদি বিবেচনা করা হয়। বীমা কোম্পানিগুলোর আর্থিক স্থিতিশীলতা বজায় রেখে পলিসিহোল্ডারদের স্বার্থ সংরক্ষণ করার ক্ষেত্রে ‘রিস্ক বেইজড সুপারভিশন’ বীমা শিল্পে সর্বাধুনিক টুলস হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

রিস্ক বেইজড সুপারভিশন বাস্তবায়ন বিষয়ে বিভিন্ন ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির প্রতিনিধিরা তাদের মতামত প্রদান করেন। রিস্ক বেইজড সুপারভিশন গাইডলাইন আধুনিক বিশ্বে প্রচলিত থাকলেও আমাদের দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে বাস্তবায়ন করা কিছুটা জটিল ও সময় সাপেক্ষ বলে তারা মত প্রকাশ করেন। পর্যায়ক্রমে তা বাস্তবায়নের জন্য অনুরোধ করেন।

ঢাকা/এসএইচ

শেয়ার করুন

x
English Version

রিস্ক বেইজড সুপারভিশন বাস্তবায়নে বীমা কোম্পানিগুলোকে প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান

আপডেট: ০৪:২৭:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ এপ্রিল ২০২৪

রিস্ক বেইজড সুপারভিশন বাস্তাবায়নে দেশের সকল লাইফ ও নন-লাইফ বীমা কোম্পানিকে প্রস্তুতি আহ্বান জানিয়েছেন বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের ( আইডিআরএ) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারী।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

মঙ্গলবার (০২ এপ্রিল) কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে বীমা কোম্পানিগুলোর মুখ্য নির্বাহীসহ খাত সংশ্লিষ্টদের সাথে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এই আহবান জানান।

আইডিআরএ’র সকল সদস্য, নির্বাহী পরিচালক, পরিচালক, উপ-পরিচালক, সহকারী পরিচালক, সাধারণ বীমা করপোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, জীবন বীমা করপোরেশনের জেনারেল ম্যানেজার, বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স ফোরামের সভাপতি এবং বিভিন্ন বীমা কোম্পানির মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তারা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় রিস্ক বেইজড সুপারভিশন গাইডলাইনের খসড়া উপস্থাপন করেন বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের সহকারী পরিচালক মো. আবু মাহমুদ।

আইডিআরএ চেয়ারম্যান বলেন, বীমা একটি বৈশ্বিক শিল্প বিধায় বিশ্বের অন্যান্য দেশে প্রচলিত নিয়ম নীতিগুলো অনুসরণ করে টেকসই বীমা শিল্প গড়ে তুলতে হবে। রিস্ক বেইজড সুপারভিশন গাইডলাইন বাস্তবায়নের মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর প্রকৃত চিত্র প্রতিফলিত হবে।

তিনি উন্নত বিশ্বে প্রচলিত রিস্ক বেইজড সুপারভিশন আমাদের দেশে দ্রুত বাস্তবায়নের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। এজন্য প্রশিক্ষণসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেয়া হবে বলেও জানান কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারী।

গাইডলাইনের বিষয়ে বৈঠকে বলা হয়, ঝুঁকি ভিত্তিক নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থায় কোম্পানিগুলোর ঝুঁকির মাত্রা বিবেচনায় নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থা নিয়ন্ত্রণমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করে, যার মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর আর্থিক স্থিতিশীলতা বজায় থাকে।

কোম্পানিগুলোর রিস্ক প্রোফাইল এর মাধ্যমে এই কার্যক্রম শুরু হয় এবং ঝুঁকির মাত্রা অনুযায়ী বিভিন্ন শ্রেণীতে বিভাজন করে আনুপাতিকভাবে নিয়ন্ত্রণমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।

আরও পড়ুন: এবার ইসলামী ব্যাংকের ভল্ট ভেঙ্গে টাকা চুরি

এই প্রক্রিয়ায় গুণগত ও পরিমাণগত বিভিন্ন চলক ও তথ্যাদি বিবেচনা করা হয়। বীমা কোম্পানিগুলোর আর্থিক স্থিতিশীলতা বজায় রেখে পলিসিহোল্ডারদের স্বার্থ সংরক্ষণ করার ক্ষেত্রে ‘রিস্ক বেইজড সুপারভিশন’ বীমা শিল্পে সর্বাধুনিক টুলস হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

রিস্ক বেইজড সুপারভিশন বাস্তবায়ন বিষয়ে বিভিন্ন ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির প্রতিনিধিরা তাদের মতামত প্রদান করেন। রিস্ক বেইজড সুপারভিশন গাইডলাইন আধুনিক বিশ্বে প্রচলিত থাকলেও আমাদের দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে বাস্তবায়ন করা কিছুটা জটিল ও সময় সাপেক্ষ বলে তারা মত প্রকাশ করেন। পর্যায়ক্রমে তা বাস্তবায়নের জন্য অনুরোধ করেন।

ঢাকা/এসএইচ