১২:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

সূচকের পতনে সর্বোচ্চ দায় পাঁচ কোম্পানির

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ০৩:১৯:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ জুন ২০২৩
  • / ৪৫০০ বার দেখা হয়েছে

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস আজ সোমবার (৫ জুন) প্রধান মূল্য সূচক নয় পয়েন্ট কমেছে। আজ ডিএসইতে সূচকের পতন হলেও টাকার অংকে লেনদেন বেড়েছে। এদিন ডিএসইতে ১ হাজার ২৫৬ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে। লেনদেন ১২’শ কোটি ছাড়ালেও মূলত চার কোম্পানির করণেই আজ ডিএসইর সূচকের পতন হয়েছে। সূচকের পতনে পাঁচ কোম্পানির সম্বলিত অবদান ছিল ৭.২৪ পয়েন্ট। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক কমলেও  লেনদেন বেড়েছে। ডিএসই, সিএসই ও আমার স্টক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

ডিএসইতে ৩৬১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭১টির বা ১৯.৬ শতাংশ, কমেছে ১১২টির বা ৩০.৯ শতাংশ এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭৮টির বা ৪৯.৫ বা শতাংশ কোম্পানির।

আজ ডিএসইতে ১ হাজার ২৫৬ কোটি ৬৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিন থেকে ২ কোটি ২৮ লাখ টাকা বেশি লেনদেন হয়েছে। গত কার্যদিবসে ডিএসইতে ১ হাজার ২৫৪ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

সূত্র মতে, সূচকের পতনে সবচেয়ে বেশি অবদান সী পার্ল বীচের। সূচকের পতনে কোম্পানিটির অবদান ছিল ৩.১০ পয়েন্ট। আজ কোম্পানিটিতে ১৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২০৯.১ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২২৫.১ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে ১৬ টাকা বা ৭.১১ শতাংশ।

আরও পড়ুন: দুই কোম্পানি স্পট মার্কেটে যাচ্ছে কাল

এর পরের স্থানে রয়েছে হাইডেলবার্গ সিমেন্ট। সূচক পতনে কোম্পানিটির অবদান ছিল ১.২১ পয়েন্ট। আজ কোম্পানিটিতে ৮ কোটি ৫৭ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২৯৫.৫ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ৩০৮.৮ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে ১৩.৩ টাকা বা ৪.৩১ শতাংশ।

সূচক কমায় ১.১২ পয়েন্ট অবদান রেখে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে লাফার্জহোলসিম। আজ কোম্পানিটিতে ২২ কোটি ১৩ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ৭১ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ৭১.৬ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে .৬ টাকা বা .৮৪ শতাংশ।

চতুর্থ স্থানে থাকা নাভানা ফার্মা সূচক কমায় অবদান রেখেছে ১.০৫ পয়েন্ট। আজ কোম্পানিটিতে ২৪ কোটি ৮১ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ১০৪.৪ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ১১০.৫ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে ৬.১ টাকা বা ৫.৫২ শতাংশ।

তালিকার পরের অবস্থানে থাকা ইউনিলিভার সূচক কমায় অবদান রেখেছে .৭৬ পয়েন্ট। আজ কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২০৪৫ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২০৬৯.৫ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে ২৪.৫ টাকা বা ১.১৮ শতাংশ।

আরও পড়ুন: স্টক ডিভিডেন্ড পাঠিয়েছে ইউনিলিভার

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, ডিএসই প্রধান বা ডিএসইএক্স সূচক ৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৬ হাজার ৩৫৬ পয়েন্টে। অন্য সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ০.৭০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৩৮২ পয়েন্টে এবং ডিএস৩০ সূচক ০.৮৩ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ১৯৮ পয়েন্টে নিয়ে আগের অবস্থানে দাঁড়িয়ে আছে।

অপরদিকে, সিএসইর প্রধান সূচক সিএএসপিআই ২০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৭৬৮ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে ২২ কোটি ৮৮ লাখ টাকা শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা গত কার্যদিবস থেকে ৯৪ লাখ টাকা বেশি। গত কার্যদিবসে সিএসইতে ২১ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

সিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া হওয়া ২৩২টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৫৯টি, কমেছে ৮১টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৯২টির।

ঢাকা/এসএ

শেয়ার করুন

x

সূচকের পতনে সর্বোচ্চ দায় পাঁচ কোম্পানির

আপডেট: ০৩:১৯:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ জুন ২০২৩

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস আজ সোমবার (৫ জুন) প্রধান মূল্য সূচক নয় পয়েন্ট কমেছে। আজ ডিএসইতে সূচকের পতন হলেও টাকার অংকে লেনদেন বেড়েছে। এদিন ডিএসইতে ১ হাজার ২৫৬ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে। লেনদেন ১২’শ কোটি ছাড়ালেও মূলত চার কোম্পানির করণেই আজ ডিএসইর সূচকের পতন হয়েছে। সূচকের পতনে পাঁচ কোম্পানির সম্বলিত অবদান ছিল ৭.২৪ পয়েন্ট। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক কমলেও  লেনদেন বেড়েছে। ডিএসই, সিএসই ও আমার স্টক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

ডিএসইতে ৩৬১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭১টির বা ১৯.৬ শতাংশ, কমেছে ১১২টির বা ৩০.৯ শতাংশ এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭৮টির বা ৪৯.৫ বা শতাংশ কোম্পানির।

আজ ডিএসইতে ১ হাজার ২৫৬ কোটি ৬৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিন থেকে ২ কোটি ২৮ লাখ টাকা বেশি লেনদেন হয়েছে। গত কার্যদিবসে ডিএসইতে ১ হাজার ২৫৪ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

সূত্র মতে, সূচকের পতনে সবচেয়ে বেশি অবদান সী পার্ল বীচের। সূচকের পতনে কোম্পানিটির অবদান ছিল ৩.১০ পয়েন্ট। আজ কোম্পানিটিতে ১৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২০৯.১ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২২৫.১ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে ১৬ টাকা বা ৭.১১ শতাংশ।

আরও পড়ুন: দুই কোম্পানি স্পট মার্কেটে যাচ্ছে কাল

এর পরের স্থানে রয়েছে হাইডেলবার্গ সিমেন্ট। সূচক পতনে কোম্পানিটির অবদান ছিল ১.২১ পয়েন্ট। আজ কোম্পানিটিতে ৮ কোটি ৫৭ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২৯৫.৫ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ৩০৮.৮ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে ১৩.৩ টাকা বা ৪.৩১ শতাংশ।

সূচক কমায় ১.১২ পয়েন্ট অবদান রেখে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে লাফার্জহোলসিম। আজ কোম্পানিটিতে ২২ কোটি ১৩ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ৭১ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ৭১.৬ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে .৬ টাকা বা .৮৪ শতাংশ।

চতুর্থ স্থানে থাকা নাভানা ফার্মা সূচক কমায় অবদান রেখেছে ১.০৫ পয়েন্ট। আজ কোম্পানিটিতে ২৪ কোটি ৮১ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ১০৪.৪ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ১১০.৫ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে ৬.১ টাকা বা ৫.৫২ শতাংশ।

তালিকার পরের অবস্থানে থাকা ইউনিলিভার সূচক কমায় অবদান রেখেছে .৭৬ পয়েন্ট। আজ কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২০৪৫ টাকা। গত কার্যদিবসে কোম্পানিটির ক্লোজিং দর ছিল ২০৬৯.৫ টাকা। অর্থাৎ কোম্পানিটির দর কমেছে ২৪.৫ টাকা বা ১.১৮ শতাংশ।

আরও পড়ুন: স্টক ডিভিডেন্ড পাঠিয়েছে ইউনিলিভার

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, ডিএসই প্রধান বা ডিএসইএক্স সূচক ৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৬ হাজার ৩৫৬ পয়েন্টে। অন্য সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ০.৭০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৩৮২ পয়েন্টে এবং ডিএস৩০ সূচক ০.৮৩ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ১৯৮ পয়েন্টে নিয়ে আগের অবস্থানে দাঁড়িয়ে আছে।

অপরদিকে, সিএসইর প্রধান সূচক সিএএসপিআই ২০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৭৬৮ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে ২২ কোটি ৮৮ লাখ টাকা শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা গত কার্যদিবস থেকে ৯৪ লাখ টাকা বেশি। গত কার্যদিবসে সিএসইতে ২১ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

সিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া হওয়া ২৩২টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৫৯টি, কমেছে ৮১টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ৯২টির।

ঢাকা/এসএ