১০:২৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০২৪

সেনাবাহিনী জনগণের সমর্থন নিয়ে সার্বভৌম রক্ষায় কাজ করছে: সেনাপ্রধান

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ০৩:৫৩:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০২২
  • / ৪১৯৭ বার দেখা হয়েছে

সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ‘সেনাবাহিনী সবসময় দেশের জনগণের সমর্থন নিয়ে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌম রক্ষায় কাজ করে যাচ্ছে। সেনাবাহিনীর শীতকালীন প্রশিক্ষণের সময়ে জনকল্যাণমূলক কাজের অংশ হিসেবে অসহায়, দুস্থ ও শীতার্ত মানুষের পাশে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কক্সবাজার অঞ্চলের অসহায়, দুস্থ ও গরিব মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। প্রশিক্ষণ এলাকায় অসহায়, দুস্থ ও নিম্ন আয়ের মানুষদের মাঝে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শীতবস্ত্র বিতরণের এই মানবিক কার্যক্রমে অংশ নিয়েছে।’

আজ শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) কক্সবাজারের রামু ১০ পদাতিক ডিভিশনের দায়িত্বপূর্ণ শীতকালীন প্রশিক্ষণ এলাকা পরিদর্শনকালে কক্সবাজারের উখিয়া ইনানী এলাকায় শীতবস্ত্র বিতরণ ও সেনাবাহিনী পরিচালিত চিকিৎসা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

প্রশিক্ষণ পরিদর্শনকালে তিনি যুদ্ধকালীন প্রস্তুতি স্বরূপ বিভিন্ন রণকৌশল প্রশিক্ষণ কার্যাবলী পর্যবেক্ষণ করেন। সেনাপ্রধান বলেন, ‘দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা রক্ষার পাশাপাশি দেশ গঠনে বিভিন্ন কর্মকাণ্ড, জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলায় এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে দায়িত্ব পালন করে সুখ্যাতি ও সুনাম অর্জন করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।’

আরও পড়ুন: নাটোরে ট্রেনে কাটা পড়ে তিন জনের মৃত্যু

এ সময় তিনি সৈনিকদের মনোবল উন্নত রেখে আধুনিক ও যুগোপযোগী প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা অর্জন করে একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশনা দেন।

তখন জেনারেল অফিসার কমান্ডিং (জিওসি) ও এরিয়া কমান্ডার কক্সবাজার এরিয়া মেজর জেনারেল মো. ফখরুল আহসান, সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মুহম্মদ শাহীন ইমরান উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা/এসএ

শেয়ার করুন

x
English Version

সেনাবাহিনী জনগণের সমর্থন নিয়ে সার্বভৌম রক্ষায় কাজ করছে: সেনাপ্রধান

আপডেট: ০৩:৫৩:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০২২

সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ‘সেনাবাহিনী সবসময় দেশের জনগণের সমর্থন নিয়ে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌম রক্ষায় কাজ করে যাচ্ছে। সেনাবাহিনীর শীতকালীন প্রশিক্ষণের সময়ে জনকল্যাণমূলক কাজের অংশ হিসেবে অসহায়, দুস্থ ও শীতার্ত মানুষের পাশে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কক্সবাজার অঞ্চলের অসহায়, দুস্থ ও গরিব মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। প্রশিক্ষণ এলাকায় অসহায়, দুস্থ ও নিম্ন আয়ের মানুষদের মাঝে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শীতবস্ত্র বিতরণের এই মানবিক কার্যক্রমে অংশ নিয়েছে।’

আজ শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) কক্সবাজারের রামু ১০ পদাতিক ডিভিশনের দায়িত্বপূর্ণ শীতকালীন প্রশিক্ষণ এলাকা পরিদর্শনকালে কক্সবাজারের উখিয়া ইনানী এলাকায় শীতবস্ত্র বিতরণ ও সেনাবাহিনী পরিচালিত চিকিৎসা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

প্রশিক্ষণ পরিদর্শনকালে তিনি যুদ্ধকালীন প্রস্তুতি স্বরূপ বিভিন্ন রণকৌশল প্রশিক্ষণ কার্যাবলী পর্যবেক্ষণ করেন। সেনাপ্রধান বলেন, ‘দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা রক্ষার পাশাপাশি দেশ গঠনে বিভিন্ন কর্মকাণ্ড, জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলায় এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে দায়িত্ব পালন করে সুখ্যাতি ও সুনাম অর্জন করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।’

আরও পড়ুন: নাটোরে ট্রেনে কাটা পড়ে তিন জনের মৃত্যু

এ সময় তিনি সৈনিকদের মনোবল উন্নত রেখে আধুনিক ও যুগোপযোগী প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা অর্জন করে একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশনা দেন।

তখন জেনারেল অফিসার কমান্ডিং (জিওসি) ও এরিয়া কমান্ডার কক্সবাজার এরিয়া মেজর জেনারেল মো. ফখরুল আহসান, সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মুহম্মদ শাহীন ইমরান উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা/এসএ