০৭:৪৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪

আই ক্রিম কেনার আগে জানবেন যেসব বিষয়

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ০৪:৫৭:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৪১২১ বার দেখা হয়েছে

অনিদ্রা, মানসিক চাপ, দূষণ, ত্বকের অযত্ন ডার্ক সার্কেলের সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। তাই নিয়মিত চোখের চারপাশে আই ক্রিম লাগাতে হয়। এতে চোখের চারপাশের ত্বকে রক্ত সঞ্চালন ভালো থাকে। বাজারে নামীদামি ব্র্যান্ডের আই ক্রিম পাওয়া যায়। সেগুলো কোনটা বেশ ভালো কাজ করে, আবার কোনটায় ভালো ফলাফল পাওয়া যায় না।কিন্তু চোখের নিচে আপনি যে কোনও ক্রিম ব্যবহার করতে পারবেন না। চোখের চারপাশের ত্বক অত্যন্ত সংবেদনশীল হয়। সঠিক আই ক্রিম ব্যবহার না করলে ত্বকের সমস্যা বাড়তে পারে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

ডার্ক সার্কেল দূর করতে আই ক্রিম কেনার আগে তাতে কোন-কোন উপাদান থাকা যাবে না, জেনে নিন-

১. ত্বককে বার্ধক্যের হাত থেকে রক্ষা করে রেটিনয়েড। এই উপাদান বলিরেখা, সূক্ষ্মরেখা দূর করে। কিন্তু চোখের চারপাশে রেটিনয়েড সমৃদ্ধ ক্রিম লাগালে লালচে ভাব, শুষ্কতার সমস্যা দেখা দিতে পারে।

২. ব্রণর হাত থেকে বাঁচতে স্যালিসিলিক অ্যাসিড ব্যবহার করুন। স্যালিসিলিক অ্যাসিড ত্বককে এক্সফোলিয়েট করে। কিন্তু এটি চোখের চারপাশে ব্যবহার করলে র‍্যাশের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৩. ত্বকের রোমের রং পরিবর্তন করতে এবং ট্যান ঢাকতে ব্লিচ করেন? ব্লিচের মধ্যে হাইড্রোজেন পারক্সাইড থাকে। এই উপাদান চোখের চারপাশের চামড়ার জন্য ক্ষতিকারক। তাই ভুলেও মুখে ব্লিচ করবেন না।

৪. আই ক্রিম বাছাইয়ের সময় দেখে নিন তাতে কোনও সুগন্ধী যুক্ত উপাদান রয়েছে কি না। ক্রিমের গন্ধ ভালো হলে, জানবেন সেটা আপনার ত্বকের জন্য উপযুক্ত নয়। সুগন্ধী যুক্ত আই ক্রিম ব্যবহারে চোখের চারপাশের ত্বকে চুলকানি, লালচে ভাব বাড়তে পারে।

আরো পড়ুন: ভ্রমণকালে যানবাহনে করণীয় বর্জনীয়

৫. আজকাল রূপচর্চা দুনিয়ায় ব্যাপক হারে এসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করা হয়। কিন্তু পেপারমিন্ট, লেমন, ইউক্যালিপটাসের মতো এসেনশিয়াল অয়েল চোখের নিচে লাগালে ত্বক জ্বলতে পারে।

ঢাকা/কেএ

Print Friendly, PDF & Email
ট্যাগঃ

শেয়ার করুন

x
English Version

আই ক্রিম কেনার আগে জানবেন যেসব বিষয়

আপডেট: ০৪:৫৭:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩

অনিদ্রা, মানসিক চাপ, দূষণ, ত্বকের অযত্ন ডার্ক সার্কেলের সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। তাই নিয়মিত চোখের চারপাশে আই ক্রিম লাগাতে হয়। এতে চোখের চারপাশের ত্বকে রক্ত সঞ্চালন ভালো থাকে। বাজারে নামীদামি ব্র্যান্ডের আই ক্রিম পাওয়া যায়। সেগুলো কোনটা বেশ ভালো কাজ করে, আবার কোনটায় ভালো ফলাফল পাওয়া যায় না।কিন্তু চোখের নিচে আপনি যে কোনও ক্রিম ব্যবহার করতে পারবেন না। চোখের চারপাশের ত্বক অত্যন্ত সংবেদনশীল হয়। সঠিক আই ক্রিম ব্যবহার না করলে ত্বকের সমস্যা বাড়তে পারে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

ডার্ক সার্কেল দূর করতে আই ক্রিম কেনার আগে তাতে কোন-কোন উপাদান থাকা যাবে না, জেনে নিন-

১. ত্বককে বার্ধক্যের হাত থেকে রক্ষা করে রেটিনয়েড। এই উপাদান বলিরেখা, সূক্ষ্মরেখা দূর করে। কিন্তু চোখের চারপাশে রেটিনয়েড সমৃদ্ধ ক্রিম লাগালে লালচে ভাব, শুষ্কতার সমস্যা দেখা দিতে পারে।

২. ব্রণর হাত থেকে বাঁচতে স্যালিসিলিক অ্যাসিড ব্যবহার করুন। স্যালিসিলিক অ্যাসিড ত্বককে এক্সফোলিয়েট করে। কিন্তু এটি চোখের চারপাশে ব্যবহার করলে র‍্যাশের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৩. ত্বকের রোমের রং পরিবর্তন করতে এবং ট্যান ঢাকতে ব্লিচ করেন? ব্লিচের মধ্যে হাইড্রোজেন পারক্সাইড থাকে। এই উপাদান চোখের চারপাশের চামড়ার জন্য ক্ষতিকারক। তাই ভুলেও মুখে ব্লিচ করবেন না।

৪. আই ক্রিম বাছাইয়ের সময় দেখে নিন তাতে কোনও সুগন্ধী যুক্ত উপাদান রয়েছে কি না। ক্রিমের গন্ধ ভালো হলে, জানবেন সেটা আপনার ত্বকের জন্য উপযুক্ত নয়। সুগন্ধী যুক্ত আই ক্রিম ব্যবহারে চোখের চারপাশের ত্বকে চুলকানি, লালচে ভাব বাড়তে পারে।

আরো পড়ুন: ভ্রমণকালে যানবাহনে করণীয় বর্জনীয়

৫. আজকাল রূপচর্চা দুনিয়ায় ব্যাপক হারে এসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করা হয়। কিন্তু পেপারমিন্ট, লেমন, ইউক্যালিপটাসের মতো এসেনশিয়াল অয়েল চোখের নিচে লাগালে ত্বক জ্বলতে পারে।

ঢাকা/কেএ

Print Friendly, PDF & Email