২৩ মার্চ ২০২০ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন আর্থিক লেনদেনে অনিয়ম, খরচ ও হয়রানি রোধে ইন্টার-অপারেবল ডিজিটাল ট্রানজেকশন প্ল্যাটফর্ম (আইডিটিপি) চালু করা হচ্ছে।

তিনি বলেন ইতোমধ্যেই ডিজিটাল মাধ্যমে আন্তঃলেনদেন শুরু করেছে দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল ওয়ালেট বিকাশ। তিনি দেশের প্রতিটি ব্যাংকসহ আর্থিক লেনদেন প্রতিষ্ঠানগুলোকে এই প্লাটফর্মে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানান। প্রতিমন্ত্রী আজ মঙ্গলবার রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে জাতিসংঘ ক্যাপিটাল ডেভলপমেন্ট ফান্ড (ইউএনসিডিএফ) এর উদ্যোগে ‘লিভিং নো মাইক্রো-মার্চেন্টস বিহাইন্ড ইন দ্য ডিজিটাল এরা ইন বাংলাদেশ’শীর্ষক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন:বিজনেসজার্নালবিজনেসজার্নাল.বিডি

সম্মেলনে বিশেষ অথিথি হিসেবে বক্তব্য্য্য রাখেনন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব আসাদুল ইসলাম, ইউএনসিডিএফ এর হেড অব করপোরেশন অব দ্য ডেলিগশন মৌরিজিও সিয়ান এবং বাংলাদেশে জাতিসংঘের নিযুক্ত আবাসিক প্রতিনিধি সুদীপ্ত মুখোপাধ্যায়। প্রতিমন্ত্রী বলেন বলেন আইডিটিপির ক্রেডিট রেটিং ও স্কোরিং সুবিধা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের ঋণ দেয়ার পথ উন্মুক্ত হবে । তিনি বলেন এ মাসেই সেবা এক্সওয়াই জেড এবং আইসিটি বিভাগের স্টার্টআপ বাংলাদেশ কোম্পানির মধ্যে অংশীদার চুক্তি হতে যাচ্ছে।

এর ডিজিটাল ইআরপি সল্যুশনের মাধ্যমে প্রান্তিক পর্যায়ের ঋণ সুবিধা পাবেন বিনা জামানতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তারা। পলক আরো বলেন, ডিজিটাল অর্থনীতির যুগে বাংলাদেশ যেন পিছিয়ে না পড়ে সে জন্য বিনিয়োগের প্রয়োজনীয়তা, আমাদের অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ, উন্নয়ন অংশীদার ও বিনিয়োগকারীদের সহায়তায় আমরা মার্চেন্ট ডেভলপমেন্ট ড্রাইভিং রুরাল মারকেটস (এমডিডিআরএম) এর মতো উদ্যোগকে প্রসারিত করছি। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে বাংলাদেশের জন্য পাঁচটি জাতীয় কৌশল প্রণয়ন করেছে উল্লেখ করে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, রোবটিক্সের জন্য জাতীয় কৌশল, জাতীয় ব্লকচেইন, ন্যাশনাল ইন্টারনেট অফ থিংস কৌশল, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার জাতীয় কৌশল এবং মাইক্রোপ্রসেসর ডিজাইন সক্ষমতা অর্জনে কৌশল নির্ধারণ করা হয়েছে যা আমাদে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দৃঢ় ভিত রচনায় সহায়তা করবে।

বিজনেসজার্নাল/ঢাকা/এনইউ 

 

আরও পড়ুন:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here