১৪ বছর আগের কথা। পরিচালক অনুরাগ বসুর হাত ধরে বড় পর্দায় অভিষেক ঘটেছিল বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রনৌতের। ইমরান হাশমি আর শাইনি আহুজার সঙ্গে ‘গ্যাংস্টার’ ছবিতে দুর্দান্ত অভিনয় করে সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন তিনি। সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার বাগিয়ে নিয়েছিলেন এই অভিনেত্রী। অভিষেকেই চমকে দেওয়া সেই কঙ্গনাকে মনে করলেন তাঁর প্রথম ছবির পরিচালক।
এত দিনের জড়ো হওয়া স্মৃতি হাতড়ে অনুরাগ বসু বলেন, ‘আমি ২০ থেকে ২৫ জন মেয়ের অডিশন নিয়েছিলাম। তাদের ভেতর কঙ্গনার মুখ আমার মাথায় গেঁথে গিয়েছিল। শুরুতে তার একজন পথপ্রদর্শক দরকার ছিল। সে খুব দ্রুত সবকিছু শিখে নিতে পারে। ‘গ্যাংস্টার’ ছবির সঙ্গে সঙ্গে আমি একটু একটু করে প্রতিদিন কঙ্গনাকেও বেড়ে উঠতে দেখেছি।’

গ্যাংস্টার’ ছবিতে কেন কঙ্গনাকেই বেছে নিয়েছিলেন অনুরাগ? এমন প্রশ্নের উত্তরে লুডো, বরফিখ্যাত এই পরিচালক বলেন, ‘প্রথম দেখায়ই কঙ্গনাকে সবার থেকে আলাদা করে ফেলা যায়। তার ভেতর কোনো মেকি ভাব ছিল না। হিমাচলে বড় হওয়া মেয়ে সে, একদম সতেজ, পাহাড়ের ঠান্ডা বাতাসের মতো। ওকে একবার দেখলে ভোলা কঠিন।

এটা ১৪ বছর আগের কঙ্গনা রনৌত। সেই কঙ্গনার এখন চেহারা কেমন? অনুরাগ বলেন, ‘এত বছরে একটা মানুষ বদলাবে, এটাই স্বাভাবিক। তবে কঙ্গনা নিজের যে “পাবলিক ইমেজ” তৈরি করেছে, তাকে আমি চিনি না। এক কঙ্গনার ভেতর দুই সত্তা আছে। তাদের একজনকে আমি চিনি। আরেকজনকে আমি চিনি না। যে কঙ্গনাকে আমি চিনি, তার সঙ্গে আমার বন্ধুত্ব।

‘ইমালি’ সিনেমায় আবার একসঙ্গে কাজ করার কথা ছিল কঙ্গনা আর অনুরাগের। যে পরিচালকের হাত ধরে কঙ্গনার বলিউডে আসা, তারকা হওয়ার পর এবার তাঁকেই ফিরিয়ে দিয়েছেন বলিউডের বড় পর্দার এই ‘কুইন’। কঙ্গনা জানিয়েছেন, তিনি নিজের পরিচালনা নিয়ে ব্যস্ত। তাই এই মুহূর্তে অনুরাগের পরের ছবির শুটিংয়ের জন্য তাঁর হাতে সময় নেই। তাই আপাতত আটকে আছে ‘ইমালি’ ছবির কাজ। কেননা, অনুরাগ এই ছবির চিত্রনাট্য লিখেছিলেন কঙ্গনাকে ভেবেই। তাই এই মুহূর্তে কঙ্গনার বিকল্পও কাউকে ভাবছেন না তিনি। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here