করোনা মহামারির মধ্যে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে ‘বার্ড ফ্লু’ ভাইরাস। গত ১০ দিনে এই ভাইরাসে দেশটিতে কয়েক লক্ষ পাখির মৃত্যু হয়েছে। 

ইতোমধ্যে ভারতের ৪টি রাজ্য ‘বার্ড ফ্লু’র’ সংক্রমণ নিশ্চিত করেছে। রাজ্যগুলো হলো- হিমাচল, মধ্য প্রদেশ, কেরালা এবং রাজস্থান। ‘বার্ড ফ্লু’ ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে এসব রাজ্য কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। খবর এনডিটিভির

এসব রাজ্যে মুরগি ও হাঁস বিক্রি বন্ধ করা হয়েছে। সংক্রমণ যাতে মানুষের মধ্যেও ছড়িয়ে না পড়ে সে দিকে নজর রখছে রাজ্য সরকারগুলো।

গত সপ্তাহে প্রথম বার্ড ফ্লু ধরা পড়ে হিমাচলের পরিযায়ী পাখিদের মধ্যে। রাজ্য সরকারের হিসেবে প্রায় এক হাজার ৭০০ পাখির মৃত্যু হয়েছে সেখানে। এরপরেই রাজ্যে মাছ, মুরগি এবং হাঁস বিক্রির ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। মুরগির ডিম বিক্রিও বন্ধ করে দেওয়া

‘বার্ড ফ্লু’ ঠেকাতে মধ্যপ্রদেশের ইন্দোর কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। ইন্দোর শহরের হঠাৎ কাকদের মৃত্যুতে আলাদা টিম গঠন করা হয়েছে। যেসব স্থানে কাক মারা যাচ্ছে সেসব স্থানের মানুষদের ঘরে ঘরে গিয়ে ‘বার্ড ফ্লু’ পরীক্ষা করা হচ্ছে।

রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ এবং হরিয়ানায় হাঁসের শরীরে ‘বার্ড ফ্লু’র’ উপস্থিতি পাওয়া গেছে। রাজস্থান সরকার হাঁস মালিকদের হাঁস মেরে ফেলার নির্দেশ দিয়েছে।

তবে ভারতে বুধবার সকাল পর্যন্ত মানুষের শরীরে ‘বার্ড ফ্লু’র’ উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। কয়েক বছর আগে দেশটিতে মানুষের শরীরে ‘বার্ড ফ্লু’ পাওয়া গিয়েছিল। ভাইরাসটি যেন মানুষের শরীরে ছড়িয়ে পড়তে না পারে তাই আগে থেকেই বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here