আল-জাজিরার বিতর্কিত প্রতিবেদন সরানোর জন্য আদালতের রায়ের অপেক্ষায় রয়েছে ফেসবুক, তবে রায় এখনো বের হয়নি বলে জানিয়েছেন বিটিআরসির আইনজীবী খন্দকার রেজা-ই রাকিব।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সুপ্রিমকোর্টে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ইউটিউবও রায়ের জন্য অপেক্ষা করছে। তবে টুইটার ও ইনস্টাগ্রামের বিষয়ে আমার কাছে কোনো তথ্য নেই।

‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেন’ সরাতে এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি এক রিটের শুনানি হয় হাইকোর্টে। সেখানে আদালত আল জাজিরায় সম্প্রচারিত ‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেন’ সব ইন্টারনেট মাধ্যম থেকে অপসারণ করতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দেন।

আল জাজিরার ওই প্রতিবেদনের প্রতিবাদে গত ৮ ফেব্রুয়ারি কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটির সম্প্রচার বন্ধ এবং ‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার্স মেন’ প্রতিবেদনটি ফেসবুক ও ইউটিউব থেকে সরানোর নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়।

অন্যদিকে, বাংলাদেশ ও সরকারের সুনাম ক্ষুণ্ণ করে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল জাজিরা টেলিভিশনে তথ্য চিত্র প্রচার করার দায়ে শায়ের জুলকারনাইন সামি ও ডেভিড বার্গম্যানসহ চার জনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন করেছে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন। 

ঢাকা মহানগর হাকিম আশেক ইমামের আদালতে  দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের অভিযোগে আল জাজিরায় তথ্যচিত্রের প্রধান চরিত্র জুলকারনাইন ওরফে সামিসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে ঢাকার সিএমএম আদালতে মামলার আবেদন করেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের নির্বাহী সভাপতি এডভোকেট মশিউর মালেক। 

মামলায় আরও উল্লেখ করা হয় আল জাজিরায় প্রচারিত তথ্য চিত্রে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ইসরাইল থেকে যে গোয়েন্দা সরঞ্জাম কেনার বিষয়ে অভিযোগ তোলা হয়েছে তার পক্ষে সুনির্দিষ্ট প্রমাণ উপস্থাপন করতে পারেনি গণমাধ্যমটি। 

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- ডেভিড বার্গম্যান, আল জাজিরা টেলিভিশনের ডিরেক্টর জেনারেল মোস্তেফা স্যোউয়াগ ও নেত্র নিউজের প্রধান সম্পাদক তাসনিম খলিল।

 

আরও পড়ুন:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here