নতুন ধারণার পর্দা, ইউনিবডি এবং কোনো রকম বাটন ও পোর্টবিহীন ফোনের ডিজাইন দেখিয়েছে চীনা ফোন ও বিভিন্ন প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান শাওমি।

অবশ্য শাওমি এ বিষয়ে কোনো তথ্য নিশ্চিত করেনি ফোনটি তারা কবে নাগাদ বাজারে ছাড়বে বা এটি আদৌ তারা তৈরি করেছে কি-না। এ ফোনের পর্দার দুই পাশে তো বটেই, উপরে এবং নিচেও বাঁকানো থাকবে।

এ ধরনের পর্দাকে ওয়াটারফল ডিসপ্লে বলে। একটি পানির ফোঁটা যেমন সব দিকে সমানভাবে বাঁকানো থাকে, এ ধরনের পর্দাও তাই। ফলে সাধারণ ফোনের পাশে, পর্দার নিচের দিকে বা সাইড দিয়ে যে বাটন বা পোর্ট থাকে, এই ফোনে তা থাকবে না।

শাওমি বলছে, এই ফোনটি এমন একটি সম্ভাবনা দেখাচ্ছে, যেখানে একেবারে নতুন রকমে উইনিবডি ফোন তৈরি করা সম্ভব। ইউনিবডি মানে হলো- পুরো ফোনটি একটি মাত্র বডির  ওপর নির্ভরশীল থাকবে। এতে কোনো অংশ অন্য অংশের সঙ্গে জোড়া দেওয়া থাকবে না।

প্রতিষ্ঠানটি এই ফোনের অস্তিত্ব সম্পর্কে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু না জানালেও তাদের একজন কর্মকর্তা প্রযুক্তিনির্ভর সংবাদমাধ্যম দ্য ভার্জকে বলেন, শাওমি ফোনটি তৈরি করেছে এবং কর্মকর্তারা তা দেখেছেন।

তিনি বলেন, শাওমি এই ফোনটি তৈরি করার জন্য অন্তত ৬৪টি পেটেন্ট নিবন্ধন করেছে। এতে গ্লাস বাঁকা করার এবং লেমিনেশনের নতুনতম প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে ইউনিবডি ফোন তৈরি সম্ভবপর হয়েছে।

এক সপ্তাহ আগে শাওমি এমন একটি প্রযুক্তির কথা বলেছে, যাতে তার বা কোনো ডিভাইসের স্পর্শ ছাড়া ফোন চার্জ দেওয়া সম্ভব হবে। শাওমি এটিকে মি এয়ার চার্জ টেকনোলজি বলে নামকরণ করেছে।

নতুন এই ফোন এবং এয়ার চার্জ টেকনোলজি কবে নাগাদ বাজারে আসবে, এ বিষয়ে শাওমির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক বা অনানুষ্ঠানিক কোনোভাবেই কিছু বলা হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here